বিভাগদী শহীদস্মৃতি মহাবিদ্যালয় সালথা, বোয়ালমারী ও ফরিদপুর সদর উপজেলার সংযোগস্থলে অবস্থিত। স্থানটি ঘিরে সালথা উপজেলার আটঘর ও রামকান্তপুর ইউনিয়ন, বোয়ালমারী উপজেলার দাদপুর ইউনিয়ন এবং ফরিদপুর সদর উপজেলার চাঁদপুর ইউনিয়ন। এ এলাকায় চারটি ইউনিয়নে ছয়টি উচ্চবিদ্যালয় ও চারটি দাখিল মাদ্রাসা আছে। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে বছরে কয়েকশ’ শিক্ষার্থী মাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়; কিন্তু ১৫ বর্গকিলোমিটারের মধ্যে কোনো কলেজ না থাকায় বেশিরভাগ শিক্ষার্থীর উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষার সুযোগ সুলভ ছিল না। কমসংখ্যক শিক্ষার্থীরই অন্যত্র গিয়ে পড়ার সুযোগ ছিল। ভর্তি হওয়ার পরও অনেককেই ছাত্রাবাস বা মেসের ব্যয় মেটাতে না পেরে মাঝপথে ছিটকে পড়তে হতো। মেয়েদের প্রায় শত ভাগের জন্য উচ্চশিক্ষা ছিল অধরা। এ পিছিয়ে পড়া এলাকায় উচ্চশিক্ষার সুযোগ নিশ্চিত করতে ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে বীর মুক্তিযোদ্ধা, লেখক-সাংবাদিক আবু সাঈদ খান ‘বিভাগদী শহীদস্মৃতি মহাবিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহণ করেন। ২০১৮-১৯ শিক্ষা বছরে একাদশ মানবিক ও বাণিজ্যিক শাখায় ৭৩ জন শিক্ষার্থী নিয়ে কলেজটি যাত্রা শুরু করেছে। প্রসঙ্গত, ১৯৬৮ সালে আবু সাঈদ খানের প্রতিষ্ঠিত নবীন ক্লাব গৃহে বিভাগদী উচ্চবিদ্যালয় যাত্রা শুরু করেছিল। ২০০৫ সালে তিনি প্রতিষ্ঠা করেন বিভাগদী রিজিয়া রশীদ প্রাথমিক বিদ্যালয়। মনোরম পরিবেশে দেড় একর জমির ওপর গড়ে তোলা হয়েছে মহাবিদ্যালয়টির বৃহৎ ক্যাম্পাস যেখানে নির্মাণ করা হয়েছে ১৪৪ (গুন চিহ্ন দিবেন ) ৪৪ বর্গফুটের সুরম্য ভবন। সরকারি আনুকূল্যে আরেকটি দ্বিতল ভবন নির্মাণ এবং একটি কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন প্রক্রিয়াধীন। মহাবিদ্যালয়ের মূল ভবনের সামনে রয়েছে বিস্তীর্ণ খেলার মাঠ। মহাবিদ্যালয়টি যোগ্য পরিচালনা পরিষদের তত্ত্বাবধানে পরিচালিত হচ্ছে। পাঠদানে নিয়োজিত রয়েছেন মেধাবী শিক্ষকমন্ডলী। এ ছাড়া নিয়মিত ফুটবল, ক্রিকেট ও অন্যান্য খেলা, বিতর্ক, সঙ্গীতচর্চাসহ নানা সহ-শিক্ষা কার্যক্রমের সুবন্দোবস্ত রয়েছে। আমরা কলেজটি পরিচালনায় সংশ্লিষ্টসব মহলের সহযোগিতা কামনা করি।

মো. তারিকুল ইসলাম
ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ
বিভাগদী শহীদস্মৃতি মহাবিদ্যালয়how to fly with a dog